ডিবি পুলিশের পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার দুই মাসের মাথায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থী সাদিকুল ইসলাম মিলনের খোঁজ মিলেছে।

রোববার সকাল ৮টার দিকে ‘অপহরণকারীরা’ বান্দরবানের একটি এলাকায় রাস্তার পাশে মিলনকে ফেলে রেখে চলে যায়।

জানা গেছে, রোববার সকাল ১০টার দিকে মিলন তার এক সহপাঠীকে ফোন দিয়ে বিকাশে কিছু টাকা পাঠাতে বলেন। পরে টাকা পাঠালে রাত ৮টার সময় গাজীপুরে তার বোনের বাসায় ফিরে আসেন।

বর্তমানে সাদিকুল মিলন গাজীপুরে তার বোনের বাসায় রয়েছেন বলে তার সহপাঠীরা জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে মিলনের মা বলেন, ‘আমার ছেলে কিছুই বলতে পারছে না। তার কিছুই মনে নেই। তাকে চোখ বাঁধা অবস্থায় কে বা কারা ফেলে রেখে গেয়েছিল।’

গত ২৩ মে ভোরে রাজধানীর আদাবর এলাকায় এক বাসা থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে কয়েকজন মিলনকে তুলে নিয়ে গিয়েছিল বলে অভিযোগ মিলনের পরিবারের। কিন্তু পুলিশ কিংবা র‌্যাব তাকে ধরার কথা অস্বীকারের পর তার পরিবার আদাবর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করে।

এছাড়া মিলনের সন্ধান দাবিতে নানা কর্মসূচি পালন করছিলেন তার সহপাঠীরা।

তবে কী কারণে, কে বা কারা মিলনকে ধরে নিয়ে গিয়েছিল, সে বিষয়ে পরিবারসহ কেউ বিষয়টা সঠিক ধারণা দিতে পারেননি।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর নূর মোহাম্মদ বলেন, সাদেকুলকে খুঁজে পাওয়ার জন্য র‌্যাব, ডিবি, পুলিশ থেকে শুরু করে আমরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখেছি।

Share