উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন দাবি করেছেন, আন্তঃমহাদেশীয় পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালানোর পর পিয়ংইয়ং এটা নিশ্চিত হয়েছে যে যুক্তরাষ্ট্রের যে কোনো স্থানে এখন উত্তর কোরিয়া হামলা করতে সক্ষম।

শনিবার দেশটির রাষ্ট্র পরিচালিত গণমাধ্যমের খবরে এমনটা দাবি করা হয়েছে। খবর এনডিটিভির।

কিম বলেন, শুক্রবার চালানো ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাটি যুক্তরাষ্ট্রের যেকোনো স্থানে উত্তর কোরিয়া যে হামলা চালাতে পারবে তার সক্ষমতা প্রদর্শন করে।

তিনি গর্বের সঙ্গে দাবি করেন, পরীক্ষাটির মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া গেছে যে, যুক্তরাষ্ট্রের পুরো ভূখণ্ড এখন আমাদের ক্ষেপণাস্ত্রের পরীসীমার মধ্যেই রয়েছে।

প্রথম আইসিবিএম পরীক্ষা চালানোর দু’সপ্তাহের মাথায় উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে এ ধরনের মন্তব্য এলো।

ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা সফল হয়েছে দাবি করে এর সঙ্গে সম্পৃক্ত সবার প্রশংসা করেন কিম।

এদিকে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাকে ঝুঁকিপূর্ণ ও বিদজ্জনক বলে আখ্যায়িত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি এও দাবি করেন যে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা ব্যর্থ হয়েছে।

এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা উত্তর কোরিয়াকে এক ঘরে করে দেবে। তাছাড়া দেশটিকে অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল করে দেবে এবং দেশটির জনগণকে অন্যান্য সুবিধা থেকে বঞ্চিত করবে।

তিনি জানান, তার সরকার যুক্তরাষ্ট্রকে এ ধরনের হামলা থেকে রক্ষা করবে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার উত্তর কোরিয়া ফের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে। ক্ষেপণাস্ত্রটি জাপান সাগরের উপকূল থেকে ২০০ মাইল দূরে জাপানের একটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে (ইইজেড) আঘাত হেনে থাকতে পারে।

জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে এ ব্যাপারে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন। আবে শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, কর্মকর্তারা এ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার ব্যাপারটি খতিয়ে দেখছেন। শুক্রবার মধ্যরাতের কিছু আগে ক্ষেপণাস্ত্রটির পরীক্ষা চালানো হয়।

এ ব্যাপারে জাপানের প্রধানমন্ত্রী জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের এক জরুরি বৈঠক আহ্বান করেন।

Share