মোঃ আবদুর রহমান, ছারছীনা থেকে: আমীরে হিযবুল্লাহ, মুজাদ্দিদে যামান, কুত্ববুল আলম ছারছীনা শরীফের পীর ছাহেব আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ (মা.জি.আ.) বলেছেন- পবিত্র কুরআনুল কারীমে মহান আল্লাহ তায়ালা বারবার বলেছেন- “হে মুমীনগণ! তোমরা আল্লাহকে ভয় কর। ভয় করার মত।” যে ব্যক্তি আল্লাহকে খাঁটি মনে, খাঁটি দিলে, খাঁটি ভাবে ভয় করে তাকে মুত্তাকী বলা হয়। আর মুত্তাকী ব্যক্তীই আল্লাহর ভয়কে হৃদয়ের গহীনে সযতেœ লালন করে তাকওয়া ভিত্তিক জীবন গঠন করার জন্য প্রানপণ চেষ্টা করে থাকে। এই পৃথিবীতে আগত নবী-রাসূলদের পরে সবচেয়ে বেশি তাকওয়াপূর্ণ জীবন যাদের ছিল তারা হরেন সাহাবায়ে কেরাম। আর এই মহান সাহাবায়ে কেরামগণ হলেন সত্যের মাপকাঠী। তাদের অনুসরণ ও অনুকরণের মধ্যে হেদায়েত প্রাপ্তির নির্দেশনা রয়েছে। অপরদিকে তাকওয়াবান ব্যক্তি আল্লাহর নিকট সর্বাধিক সম্মানিত। আর এইা তাকওয়াবান একদল আল্লাহপ্রেমিক লোক তৈরী করার জন্যই কুত্ববুল আলম আল্লামা শাহ্ সূফী নেছারুদ্দিন আহমদ (রহঃ) ছারছীনা দরবার প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তার এই মিশন এবং আদর্শকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য তারই জানেশীন মুজাদ্দিদে যামান, কুত্ববুল আলম শাহ্ সূফী আবু জাফর মোহাম্মাদ ছালেহ (রহঃ) আজীবন কঠোর সাধনা ও পরিশ্রম করে গেছেন। এই মহান অলিদ্বয় আজ আমাদের মাঝে নেই। আছে তাদের আদর্শ ও তাকওয়াপূর্ণ জীবন। আমরা যদি তাদের দেখানো পথে জীবন গড়তে পারি তাহলে আমরাও খাঁটি মুত্তাকী হয়ে মহান আল্লাহর দরবারে হাজির হতে পারবো ইনশাআল্লাহ।

২৯ জানুয়ারী রোজ রবিবার ছারছীনা দরবার শরীফে ছারছীনা শরীফের কুত্ববুল আলম হযরত মাওলানা শাহ সূফী নেছারুদ্দীন আহমদ (রহঃ) ও তারই জানেশীন মুজাদ্দিদে যামান হযরত মাওলানা শাহ সূফী আবু জা’ফর মুহাম্মদ ছালেহ (রহঃ) এর ইন্তেকাল বার্ষিকী উপলক্ষে আয়েজিত তিনদিনব্যাপী ঈছালে ছওয়াব মাহফিলের প্রথম দিন বাদ মাগরীব হযরত পীর ছাহেব কেবলা একথা বলেন।

মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ জমইয়তে হিযবুল্লাহর সিনিয়র নায়েবে আমীর ও হযরত পীর ছাহেব কেবলার বড় ছাহেবজাদা আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ আবু নছর নেছারুদ্দীন আহমদ হুসাইন, ছারছীনা আলিয়া মাদ্রাসার উপাধ্যক্ষ মাওঃ মোঃ রুহুল আমিন ছালেহী, হযরত পীর ছাহেব কেবলার ছোট সাহেবজাদা আলহাজ্ব শাহ আবু বকর মোহাম্মদ ছালেহ নেছারুল্লাহ, প্রমুখ।

Share