আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, পবিত্র রমজানে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের বাজার মূল্য স্বাভাবিক রয়েছে।

তিনি বলেন, রমজানে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য চাহিদার চেয়ে অনেক বেশি মজুত রয়েছে।

ছোলা, বুট, খেজুর, চিনি, লবনসহ সব পণ্যের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। আমরা ব্যবসায়ী, বড় বড় আমদানিকারক, পাইকার ও খুচরা বিক্রেতাদের সাথে মিটিং করে বাজার স্বাভাকি রাখার চেষ্টা করেছি।

মন্ত্রী শুক্রবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলা পরিষদের আয়োজনে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মোশারেফ হোসেন সভাপতিত্ব করেন।

মন্ত্রী বলেন, এখন মুক্তবাজার অর্থনীতির সময়। কোন পণ্যের দাম যদি বিদেশে বাড়ে, বাংলাদেশেও এর প্রভাব পড়ে। বিদেশে যদি কমে, এখানেও কমে যায়। আমাদের টিসিবি’র রোজার মাসে ৭ থেকে ৮ কোটি টাকা ভুর্তকী দিয়ে খোলা ট্রাকে ন্যায্যমূল্যে পণ্য বিক্রি করে।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, বিএনপি’র আমলে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে ব্যবসা বাণিজ্য নিয়ন্ত্রণ করা হতো। তাই তখন ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসার পায়নি। আর আজকে আমাদের শিল্পে ৩০ শতাংশ বৃদ্ধি, সার্ভিস খাতে ৫৫ শতাংশ ও কৃষি খাতে ১৫ শতাংশ উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। দেশের সব খাতই আজ সমৃদ্ধ।

তিনি বলেন, ভোলায় নদী ভাঙ্গন অন্যতম প্রধান সমস্যা ছিল। তাই পুরো জেলায় নদী ভাঙ্গন রোধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রায় ১৬ শ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন। এসব কাজ শেষ হলে ভোলাকে নদী ভাঙ্গনের হাত থেকে রক্ষা করা যাবে। তিনি বলেন, ভোলাকে মূল ভুখন্ডের সাথে যুক্ত করতে ভোলা বরিশাল ব্রীজ নির্মাণ করা হবে।

ইফতার মাহফিলে জেলা প্রশাসক মো: সেলিমউদ্দিন, পুলিশ সুপার (এসপি) মো: মোকতার হোসেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মমিন টুলু, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডর মো: দোস্ত মাহমুদ, প্রেসক্লাব সভাপতি এম হাবিবুর রহমান, জেলা আইজীবী সমিতির সম্পাদক নুরুন আমীন নুরনবী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৃধা মো: মুজাহিদুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক আরজু, সাংগঠনিক সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব, উপজেলা আওয়ামী লীগ সম্পাদক নজরুল ইসলাম গোলদার, শহর আওয়ামী লীগ সভাপতি নজিবুল্লাহ নাজু, সম্পাদক আলী নেওয়াজ পলাশ, যুবলীগ সম্পাদক আতিকুর রহমানসহ উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, বিভিন্ন ইউপি চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি-সম্পাদকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Share