বছর শেষে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ২ শতাংশ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় হোটেলে সোনারগাঁওয়ে এশিয়া প্যাসিফিক বিজনেস ফোরাম কর্তৃক আয়োজিত রিজিওনাল ইন্টিগ্রেশন টু এচিভ সাসটেইনেবল ডেভলপমেন্ট শীর্ষক এক সেমিনারে এসব কথা বলেন তিনি। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি দ্রুতগতিতে সামনে এগিয়ে যাচ্ছে। ১৯৭২ সালে বাংলাদেশ রপ্তানি নির্ভর ছিল কৃষির ওপর, আর এখন তা শিল্পের ওপর। একসময় আমাদের দেশকে তলাবিহীন ঝুড়ি বলা হতো, আর এখন অর্থনীতিতে আমরা রোল মডেল। প্রতিবছরই বাড়ছে জিডিপি। আশা করছি চলতি বছর শেষে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ২ শতাংশ হতে পারে।

তিনি আরও বলেন, শিল্প টেকনোলজিতে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এসডিজি বাস্তবায়ন সম্ভব কিনা তা নিয়ে এখন আর কোনো সংশয় নেই। আমরা নিশ্চিত এসডিজি বাস্তবায়ন করতে পারব। অন্যদিকে এশিয়ান ডেভলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) ভাইস প্রেসিডেন্ট (অপারেশন) ওয়েন চাই ঝাং বলেন, সাসটেইনেবল উন্নয়নের জন্য সমন্বয় খুব জরুরি। উন্নয়নের জন্য নেওয়া সব প্রকল্পের মধ্যে সুষম সমন্বয়ের দিকে নজর দিতে হবে। পিপিপি’র মাধ্যমে নানা প্রকল্প কিভাবে বাস্তবায়ন করা যাবে তা ভাবতে হবে।

বেসরকারি খাতকে উৎসাহ দিতে হবে। কিভাবে বহুমুখীকরণ অর্থনীতি প্রতিষ্ঠা করা যায় সেদিকে নজর দিতে হবে। শুধু মাত্র দু-একটি খাতের ওপর নির্ভর করে শক্ত অর্থনীতি তৈরি করা যায় না। এ জন্য আমরা আগ্রহী দেশগুলোকে সহায়তা আগেও দিয়েছি, সামনে দেব। শক্ত অর্থনীতি তৈরি করতে হলে সবাইকে এক হয়ে কাজ করতে হবে। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন ইএনসিটিএডি এর সেক্রেটারি জেনারেল মুখিসা কিটুয়ি, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ড. গহর রিজভী, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ড. মির্জা মো. আজিজুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি এর প্রধান সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ।

Share