পাকিস্তানের ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের উত্তরসূরি হিসেবে তাঁর ছোট ভাই পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের নাম ঘোষণা করল ক্ষমতাসীন দল মুসলিম লীগ নওয়াজ (পিএমএল-এন)। শনিবার বিকেলে এক অনানুষ্ঠানিক বৈঠকে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে দলটি।

পরবর্তী প্রধানমন্ত্রীর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য শনিবার দুপুরে দলটির নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা ইসলামাবাদে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন পাঞ্জাব হাউসে এক বৈঠকে মিলিত হয়। বৈঠক শুরুর চার ঘণ্টা পর স্থানীয় সময় বিকেল ৪টায় পিএমএল-এন পরবর্তী প্রধানমন্ত্রীর বিষয়ে সিদ্ধান্তের কথা জানায়।

তবে দলের সিদ্ধান্তই শেষ কথা নয়। সংবাদমাধ্যম ডন জানায়, দলের মনোনয়নের পর পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছাড়তে হবে তাঁকে। এরপর পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচন হবে। এরপর তাঁকে নওয়াজের পদত্যাগে খালি হওয়া আসনে জয়ী হতে হবে। এরপরই তিনি প্রধানমন্ত্রী পদে বসতে পারবেন। আর এই পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হওয়ার সময়ে একজন অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন করবে পিএমএল-এন।

সূত্রের দাবির বরাত দিয়ে ডন অনলাইন জানায়, অন্তর্বর্তীকলীন প্রধানমন্ত্রিত্বের জন্য সাবেক মন্ত্রী রানা তানভীর, খুররাম দস্তগীর ও শহীদ হাকান আব্বাসী পিএমএল-এনের পছন্দের তালিকায় আছেন। আর পাঞ্জাবের আবগারি ও শুল্কমন্ত্রী মুজতাবা সুজাউর রেহমান শাহবাজের স্থলাভিষিক্ত হতে পারেন।

এর আগে গতকাল শুক্রবার বিকেলে এক ঘোষণায় পিএমএল-এনের শীর্ষ নেতারা জানিয়েছিল, ২০১৮ সালের নির্বাচনের আগ পর্যন্ত অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে থাকছেন নওয়াজের ছোট ভাই শাহবাজ শরিফ।

এর আগে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞের বরাত দিয়ে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ডন অনলাইন জানিয়েছিল, নওয়াজের ভাই শাহবাজের হাতে ক্ষমতা থাকলে শরিফ পরিবার নিরাপদ বোধ করবে।

প্রধানমন্ত্রীর পদ ছাড়লেও ক্ষমতাসীন পিএমএলএন দলের প্রধান হিসেবে সরকারে নওয়াজের ভূমিকা অনেক। কারণ তাঁর দল সংসদে এখনো সংখ্যাগরিষ্ঠ। ফলে নওয়াজ তাঁর উত্তরসূরি নির্বাচনেও ভূমিকা পালন করতে পারবেন। তবে কেবল মনোনয়ন দিতে পারবেন তিনি। তাঁর দলের সংসদ সদস্যদের ভোটে প্রার্থীকে নির্বাচিত হতে হবে।

এদিকে পাকিস্তানের আরেকটি সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউন জানিয়েছে, শেহবাজ ছাড়াও পিএমএলএন দলে প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য আরেক আলোচিত নাম ছিল নওয়াজের মেয়ে মারিয়াম শরিফ। কিন্তু তিনি এখনো নির্বাচিত সংসদ সদস্য না হওয়ায় সংবিধান অনুযায়ী তিনি প্রধানমন্ত্রী হতে পারবেন না।

Share