সুইডেনে তিনদিনের সরকারি সফর শেষে যুক্তরাজ্য হয়ে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার সকালে প্রধানমন্ত্রীকে বহন করা বিশেষ বিমানটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে অবতরণ করে।

ঢাকা আসার আগে সিলেট বিমান বন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বহন করা বিমানটি ১ ঘণ্টা যাত্রাবিরতি করে। এ সময় সেখানে জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

এর আগে শুক্রবার স্থানীয় সময় বেলা দেড়টায় লন্ডনের উদ্দেশে সুইডেনের অরল্যান্ড বিমানবন্দর ত্যাগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী লন্ডন হয়ে ঢাকার উদ্দেশে স্টকহোম ত্যাগ করেন। এসময় সুইডেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. গোলাম সারোয়ার বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান।

সুইডেনে এটি ছিল বাংলাদেশের কোনো সরকার প্রধানের প্রথমবারের মতো দ্বিপাক্ষিক সরকারি সফর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সফরকালে সুইডেনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠক করেন। এছাড়া দুই নেতার মাঝে একান্তে একটি বৈঠকও হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সম্মানে সুইডেনের প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ভোজসভায় যোগ দেন।

সফরকালে প্রধানমন্ত্রী রয়্যাল প্যালেসের অডিয়েন্স হলে সুইডেনের রাজা ষোড়শ গুস্তাভ-এর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। তিনি সুইডিশ পার্লামেন্ট পরিদর্শন এবং ভারপ্রাপ্ত স্পিকার টোবিয়াস বিলস্টর্মের সঙ্গেও বৈঠক করেন।

সুইডেনের উপ-প্রধানমন্ত্রী ইসাবেলা লোভিন এবং বিচার ও অভিবাসন মন্ত্রী মর্গান জোহানসন যথাক্রমে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং গ্র্যান্ড হোটেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে পৃথক সাক্ষাৎ করেন।

প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ-সুইডেন বাণিজ্য ও বিনিয়োগ ফোরামের একটি বিজনেস ডায়ালগে অংশ নেন এবং প্রবাসীদের দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগদান করেন।

Share